পরিমিত লবণ কমায় হার্ট অ্যাটাকের ঝুঁকি

Image result for লবণ
http://worldupdate24.com

অতিরিক্ত লবণ গ্রহণে উচ্চ রক্তচাপ ও হার্টের সমস্যা বাড়লেও পরিমিত লবণ খেলে কমে। আমেরিকান মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশনের জার্নালে প্রকাশিত একটি গবেষণা প্রতিবেদনের বরাত দিয়ে এ তথ্য জানিয়েছে স্বাস্থ্যবিষয়ক অনলাইন পত্রিকা ওয়েব এমডি। আমেরিকান জার্নাল অব হাইপারটেনশন পত্রিকায় প্রকাশিত প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, “খুব কম বা খুব বেশি নয় বরং নির্দিষ্ট পরিমাণ লবণ গ্রহণ স্বাস্থ্যকর হতে পারে।”

কানাডার ম্যাকমাস্টার বিশ্ববিদ্যালয়ের একদল গবেষক দু’টি ক্লিনিকের প্রায় ৩০ হাজার রোগীর ওপর গবেষণা চালান। গবেষকরা তাদের সকালের ইউরিন সংগ্রহ করে তাতে সোডিয়াম ও পটাসিয়ামের মাত্রা পরীক্ষা করেন। চার বছর ধরে এ পরীক্ষা চালানোর পর গবেষণায় অংশগ্রহণকারী প্রায় ১৬ শতাংশের বিভিন্ন ধরনের হৃদরোগ ধরা পড়ে। এরপর গবেষকরা লবণ গ্রহণ ও হৃদরোগের মধ্যে সম্পর্ক বের করার চেষ্টা করেন এবং ১৬৭টি কেস স্ট্যাডি প্রকাশ করেন।

গবেষণায় বলা হয়, খাবার থেকে লবণ বাদ দিলে স্বাস্থ্যের উন্নয়ন হতে পারে না। গবেষণায় দেখা যায়, উচ্চ মাত্রায় লবণযুক্ত খাদ্য গ্রহণে স্ট্রোক, হৃদরোগ ও অন্যান্য রোগের ঝুঁকি যেখানে বেশি থাকে সেখানে নির্দিষ্ট পরিমাণ লবণ গ্রহণে হার্টের সমস্যার ঝুঁকি কমতে পারে। গবেষণার নেতৃত্বদানকারী ম্যাকমাস্টারের ড. সেলিম ইউসুফ বলেন, “বেশি লবণযুক্ত খাদ্যগ্রহণকারীদের লবণ গ্রহণের মাত্রা কমানোর গুরুত্ব এবং প্রক্রিয়াজাতকৃত খাবারে সোডিয়ামের মাত্রা কমানোর প্রয়োজনীয়তা গবেষণা প্রতিবেদনে তুলে ধরা হয়েছে।”

একই সঙ্গে প্রতিবেদনে যুক্তরাষ্ট্রের অধিবাসীদের জন্য লবণ আহারের ক্ষেত্রে একটি সুষম নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। নির্দেশনায় আমেরিকার জনগণকে দৈনিক ২.৩ গ্রামের কম সোডিয়াম গ্রহণ করতে বলা হয়েছে। আর উচ্চ রক্তচাপ বা হৃদরোগীদের ক্ষেত্রে পরামর্শ দেয়া হয়েছে দৈনিক ১.৫ গ্রাম লবণ গ্রহণের। গবেষণাটি যুক্তরাষ্ট্রের ডায়েটারি গাইডলাইনের প্রতি চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দেবে বলে মন্তব্য করেছেন স্বাস্থ্য গবেষকরা। প্রসঙ্গত, এক চা চামচ বা ৫ গ্রাম লবণে প্রায় ২.৩ গ্রাম সোডিয়াম থাকে।

(Visited 9 times, 1 visits today)

Add a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *